কাশ্মীরে এখনও মোবাইল-ইন্টারনেট সেবা বন্ধ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:২২ এএম, ১৭ আগস্ট ২০১৯

কাশ্মীরের সরকারি দফতর খুলে দেয়া হয়েছে। সোমবার থেকে সেখানকার সব স্কুল-কলেজও খুলে যাচ্ছে। ১২ দিনের কারফিউতে প্রায় স্তব্ধ হয়ে পড়েছিল পুরো কাশ্মীর। বাইরের দুনিয়া থেকে সেখানকার বাসিন্দারা পুরোপুরি বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছিল।

এর মধ্যেই ঈদ আর স্বাধীনতা দিবসকে কেন্দ্র করে কোন ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটায় ধাপে ধাপে বিধিনিষেধ তুলে নেয়ার ঘোষণা দিয়েছে প্রশাসন। তবে এখনও সেখানে মোবাইল, ল্যান্ডফোন এবং ইন্টারনেট সেবা বন্ধ রয়েছে। রোববার থেকে ল্যান্ডলাইন পরিষেবা চালু হতে পারে। সাংবাদিক সম্মেলনে জম্মু-কাশ্মীরের মুখ্যসচিব বিভিআর সুব্রহ্মণ্যম বলেন, সম্ভাব্য জঙ্গি হামলার তথ্য পেয়ে কাশ্মীরে কিছু সতর্কতামূলক পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। এখন পর্যায়ক্রমে তা তুলে নেওয়া হবে।

ভারতের সংসদে ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের আগে থেকেই উপত্যকা ছেয়ে ফেলা হয় নিরাপত্তা বাহিনীতে। জারি করা হয় কারফিউ। সেখানকার মূলধারার রাজনৈতিক নেতাদের গ্রেফতার ও গৃহবন্দি করা হয়। শুক্রবার কংগ্রেস নেতা গুলাম আহমেদ মিরকে গৃহবন্দি করা হয়েছে।

ধাপে ধাপে কারফিউ তুলে নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছে কেন্দ্র। সে অনুযায়ী শনিবার ২২ জেলার ১২টি থেকে কারফিউ তুলে নেওয়া হয়েছে। তবে এর মধ্যে ৫টিতে রাতের বেলা কারফিউ জারি থাকবে। যাত্রীবাহী বাস চলাচলও শুরু হয়েছে। তবে এখনও থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

টিটিএন/জেআইএম

টাইমলাইন  

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]