ইভিএমের কারচুপির জন্যই পরাজয়: তৈমূর

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নারায়ণগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৯:২৯ পিএম, ১৬ জানুয়ারি ২০২২
সংবাদ সম্মেলনে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী তৈমূর আলম খন্দকার

ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) কারচুপির জন্য নিজের পরাজয় হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক) নির্বাচনের স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার।

তিনি বলেন, বেশকিছু কেন্দ্রে ইভিএম ত্রুটিপূর্ণ ও স্লো ছিল। অনেক লোক ভোট দিতে পারেননি। ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ফলাফল কেন মেনে নেবো? নারায়ণগঞ্জের জনগণ মেনে নেবে না।

রোববার (১৬ জানুয়ারি) নাসিক নির্বাচনে বেসরকারি ফলাফলে পরাজয়ের খবরে শহরের মাসদাইর এলাকায় এক প্রতিক্রিয়ায় এসব কথা বলেন তৈমূর আলম খন্দকার। মজলুম মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে এ প্রতিক্রিয়ার কথা জানান তিনি।

অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার বলেন, ‘আমি নারায়ণগঞ্জের মানুষকে শ্রদ্ধা জানাই। তারা আমার কাছ থেকে সরে যায়নি। তারা জীবন দিয়ে কাজ করছেন। প্রধানমন্ত্রীর ইচ্ছাকে প্রতিফলন ঘটানোর জন্য নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার আমার লোকগুলোকে গ্রেফতার করে আতঙ্ক সৃষ্টি করেছেন। বাকিটা করেছে নির্বাচন কমিশন।’

বিজয়ী মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী প্রসঙ্গে তিনি বলেন, তার বিষয়ে আগেও মন্তব্য করিনি, এখনও করবো না। খেলা হয়েছে সরকার বনাম জনগণ, সরকার বনাম তৈমূর আলম খন্দকার। আমি সিটি করপোরেশনের জন্য কী করেছি তা তাকে জিজ্ঞেস করেন। নারায়ণগঞ্জবাসী এগুলো জানে। বিএনপি আমার রক্তের সঙ্গে মিশে গেছে।’

সমর্থন করার জন্য জনগণকে ধন্যবাদ জানান তৈমূর আলম খন্দকার। তিনি বলেন, ‘আপনারা দেখবেন হেফাজতের মামলা দেওয়া হয়েছে সবাইকে। এদের মধ্যে হিন্দু লোকও আছে। এখন দেখা যায় মুসলমান তো করেই, হিন্দুরাও হেফাজত করে! আজ সকাল থেকে আটজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বন্দরের সমন্বয়ককে গ্রেফতার করা হয়েছে। আমার চিফ এজেন্টের বাড়িতে অভিযান চালানো হয়েছে। এ অবস্থায় একটা মানুষ স্বতন্ত্র দাঁড়িয়ে কীভাবে ঠিক থাকতে পারে? তারপরও জনগণ আমাকে সমর্থন দিয়েছে। আমি সবাইকে ধন্যবাদ জানাই।’

মোবাশ্বির শ্রাবণ/এসআর/জেআইএম

টাইমলাইন  

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]