অগ্নিকাণ্ডে আহতদের দেখতে হাসপাতালে মির্জা ফখরুল

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:৫৫ পিএম, ২৮ মার্চ ২০১৯
ফাইল ছবি

রাজধানীর বনানীর কামাল আতাতুর্ক এভিনিউয়ের ২২ তলা বিশিষ্ট ভবন এফআর টাওয়ারে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় আহতদের খোঁজ-খবর নিতে হাসপাতালে গেছেন বিএনপির নেতারা।

বৃহস্পতিবার (২৮ মার্চ) রাত ৮টায় রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে যান দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান।

তারা সেখানে গিয়ে আহতদের খোঁজ-খবর নেন, তাদের পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলেন এবং আহতদের দ্রুত রোগমুক্তি কামনা করেন।

বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইং সদস্য শায়রুল কবির খান জাগো নিউজকে এসব তথ্য জানান।

এদিকে অগ্নিদগ্ধদের পাশে দাঁড়াতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

দলটির সহ-দফতর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে অগ্নিকাণ্ডে ব্যাপক হতাহতের ঘটনায় গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, আজ দুপুর পৌনে ১টার দিকে রাজধানীর বনানীর বহুতল ভবন এফআর টাওয়ারে অগ্নিকাণ্ডে অগ্নিদগ্ধ হয়ে এ পর্যন্ত বেশ কিছু সংখ্যক নিহত ও অসংখ্য মানুষ আহত হওয়ার হৃদয়বিদারক ঘটনায় দেশবাসী ও হতাহতদের স্বজনদের মতো আমিও গভীরভাবে সমব্যাথী।

তিনি বলেন, সম্প্রতি রাজধানীর চকবাজারের ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের রেশ কাটতে না কাটতেই আজ বনানীতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় আমি গভীরভাবে বেদনাহত। বনানী রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ এলাকা, সেখানে বহুতল ভবনে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে এত মানুষের হতাহতের ঘটনা মানুষকে শোকে ভারাক্রান্ত করে তুলেছে। এফআর টাওয়ারের বহুতল ভবনে প্রকৃতপক্ষে কতজন হতাহত হয়েছেন তা এখনও জানা যায়নি, এ বিষয়ে আমি গভীরভাবে উৎকণ্ঠিত। উক্ত ভবনে আটকে পড়া মানুষদের উদ্ধারকর্মীরা দ্রুত উদ্ধার করতে পারবেন বলে আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি।

মির্জা ফখরুল বলেন, দেশের কোথাও না কোথাও প্রায়ই সড়ক, নৌপথ ও অগ্নিকাণ্ডের মতো দুর্ঘটনায় অকালে মানুষের প্রাণ ঝরে যাচ্ছে। সারাদেশের মানুষ শোক ও বেদনার মধ্যেই বাস করতে হচ্ছে। জনগণ ও শাসনযন্ত্র পরস্পরের প্রতিপক্ষ বলেই রাষ্ট্র-সমাজের সবখানে অব্যবস্থাপনা ও বিশৃঙ্খলার প্রবল প্রতাপ দেখা যাচ্ছে। আর এজন্যই প্রতিদিনই দুঃখের ছবি ভেসে আসছে। আইনের শাসনের অনুপস্থিতির কারনেই দুর্ঘটনার মাত্রা বৃদ্ধি পেয়েছে। অগ্নিকাণ্ডে যারা নিহত হয়েছেন তাদের পরিবার-পরিজন যেন এই কঠিন পরিস্থিতিতে ধৈর্য্য ধারণ করতে পারে সেজন্য আমি মহান আল্লার দরবারে মোনাজাত করছি। এফআর টাওয়ারের কর্তব্যরত উদ্ধারকর্মীদের আমি আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

বিবৃতিতে তিনি আরও বলেন, আমি এই অগ্নিকাণ্ডে নিহতদের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করছি এবং শোকাহত পরিবারবর্গ ও আত্মীয়স্বজনদের প্রতি জানাচ্ছি গভীর সহমর্মিতা ও সমবেদনা। আহতদের আশু সুস্থতা কামনা করছি। অগ্নিদগ্ধ হয়ে যারা বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন তাদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য চিকিৎসক ও দেশের মানুষের প্রতি আমি আহবান জানাচ্ছি।

কেএইচ/এমবিআর/এমকেএইচ

টাইমলাইন  

আপনার মতামত লিখুন :