‘বিল্ডিং কোড অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিন’

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:৪৯ পিএম, ২৯ মার্চ ২০১৯

বনানীর এফআর টাওয়ারে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার জন্য দায়ীদের চিহ্নিত করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেছেন আওয়ামী লীগ সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও কেন্দ্রীয় ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম।

শুক্রবার জাতীয় প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধু জাতীয় যুব পরিষদের উদ্যোগে আয়োজিত মহান স্বাধীনতা দিবসের আলোচনা সভায় তিনি এ দাবি করেন।

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, বিল্ডিং কোড অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিন। আইন উপেক্ষা করে দুর্নীতির মাধ্যমে ভবনের অনুমোদন যারা প্রদান করেছেন, তাদের চিহ্নিত করে শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে। অর্থ লিপ্সার কাছে জনগণের নিরাপত্তা ছেড়ে দেয়া যেতে পারে না।

তিনি বলেন, রাজউকের ব্যর্থতায় রাজধানীতে বড় বড় দালান হচ্ছে। কোনো ফাঁক-ফোকর দিয়ে এসব নকশা পাস হয়, তা খুঁজে বের করতে হবে। যারা ভবন নির্মাণ আইন না মেনে বড় বড় দালান তৈরি করেছে, তাদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনারও দাবি জানান তিনি।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর এই সদস্য বলেন, যারা বাস চালিয়ে মানুষকে হত্যা করে এবং বিল্ডিং কোড না মেনে অনুমোদন দেয় তারা বিএনপি-জামায়াতের চেয়ে বেশি ভয়ংকর। সড়ক দুঘটনা রোধ, পুরান ঢাকা থেকে রাসায়নিক গুদাম সরানো, অবৈধ স্থাপনা সরানোসহ নারী-শিশু নির্যাতন, মাদক, অবৈধ অনুমোদনসহ সব অনিয়মের বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দালন গড়ে তুলবে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন ১৪ দল। এপ্রিল থেকে এই সামাজিক আন্দোলনের কর্মসূচি নেয়া হবে।

এ ব্যাপারে সব শ্রেণি-পেশার মানুষের সহযোগিতা কামনা করে নাসিম বলেন, সড়কে নৈরাজ্যে মানুষের জীবন যাচ্ছে। ভবনের অবৈধ অনুমোদন কারা দিয়েছে, সড়কে অনিয়মের সঙ্গে কারা জড়িত। মন্ত্রিসভার বৈঠকে সিদ্ধান্ত আছে সড়কের অনিয়ম দূর করতে হবে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ কারা মানে না। এদের চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নিতে হবে।

তিনি বলেন, বিএনপি-জামায়াত যদি ভয়ঙ্কর হয় এরা তাদের চেয়েও ভয়ঙ্কর। আমরা বিএনপি জামায়াতের বিরুদ্ধেও লড়বো, এদের বিরুদ্ধে আন্দোলন গড়ে তুলব। নইলে সরকারের সব অর্জন নষ্ট হয়ে যাবে।

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, রাস্তায় যখন মানুষ মারা যায়, তখন আমরা সোচ্চার হই। কয়েকদিনের জন্য ব্যবস্থা নিই, তারপর আমরা চুপচাপ হয়ে যাই। এভাবে চলতে পারে না। এখনো কী চোখ খুলবে না আমাদের? আমি বিশ্বাস করি, অনুভব করি, বিএনপি-জামায়াতের চেয়ে অযোগ্য হচ্ছে রাস্তার ঘাতকরা। যাদের লাইসেন্স নেই, ফিটনেস নেই, এসব ঘাতকরা ওদের চেয়ে ভয়ংকর।

তিনি বলেন, অবিলম্বে বনানীর ঘটনার তদন্ত করে ব্যবস্থা নিতে হবে। যারা এই ধরনের গাফিলতি করেছে, যারা নির্মাণ কোড মানেনি, তাদের চিহ্নিত করে শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে।

এ সময় প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দ দিয়ে ফায়ার সার্ভিসকে আরো শক্তিশালী করতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি মাসুদ খান বাবুলের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য মোজাফফর হোসেন পল্টু, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ দক্ষিণ ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হক সবুজ, সম্মিলিত আওয়ামী জোটের সভাপতি নিয়াজ মোহাম্মদ খান, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল গফুর, বঙ্গবন্ধু জাতীয় যুব পরিষদের সহ-সভাপতি শওকত হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক জামালউদ্দিন প্রমুখ।

এইউএ/জেএইচ/পিআর

টাইমলাইন  

আপনার মতামত লিখুন :