ফণীর প্রভাবে সারাদেশে ভারী বৃষ্টির আশঙ্কা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:৩৩ পিএম, ০৩ মে ২০১৯
ছবি- মাহবুব আলম

ঘূর্ণিঝড় ‘ফণী’র প্রভাবে ঢাকাসহ সারাদেশে অতি ভারী বৃষ্টির আশঙ্কার কথা জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর। ঘূর্ণিঝড়টি ভারতের ওড়িশা, পশ্চিমবঙ্গ হয়ে শুক্রবার রাতে বাংলাদেশ অতিক্রম করতে পারে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা। ইতোমধ্যে ঘূর্ণিঝড়ের অগ্রবর্তী অংশের প্রভাবে প্রায় সারাদেশের আকাশ মেঘে ঢেকে গেছে।

উপকূলীয় এলাকায় শুক্রবার সকাল থেকেই থেমে থেমে বৃষ্টি হচ্ছে বলে জানা গেছে। ঢাকায়ও কয়েক দফা হালকা বৃষ্টি হয়েছে। বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে মেঘের আনাগোনায় প্রায় সন্ধ্যা নেমে যায় ঢাকায়। শুরু হয় তুমুল বৃষ্টি।

ভারী বর্ষণের সতর্কবাণীতে আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে, অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড় ‘ফণী’র প্রভাবে শুক্রবার বেলা ১১টা থেকে পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে চট্টগ্রাম, খুলনা, বরিশাল, ঢাকা, রাজশাহী, ময়মনসিংহ, রংপুর ও সিলেট বিভাগের কোথাও কোথাও ভারী (৪৪ থেকে ৮৮ মিলিমিটার/২৪ ঘণ্টা) থেকে অতিভারী (দিনে ৮৯ মিলিমিটারের বেশি) বর্ষণ হতে পারে।

আবহাওয়া অধিদফতরের পরিচালক সামছুদ্দিন আহমেদ বলেন, ইতোমধ্যে ‘ফণী’র অগ্রভাগ বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে। মূল কেন্দ্র আসতে কিছুটা দেরি হবে। ঘূর্ণিঝড়ের মেঘ ঢাকা পর্যন্ত এসে গেছে। ঢাকায় ‘ফণী’র মেঘ থেকেই বৃষ্টি হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের ধারণা ছিল সন্ধ্যা নাগাদ এটি বাংলাদেশে আসবে। এটি একটি বিশাল বডি। এটি সন্ধ্যা থেকে শুরু করে করে সারারাতব্যাপী অতিক্রম করতে থাকবে। পুরো ব্যাস বাংলাদেশের সমগ্র আকাশ ছেয়ে ফেলবে মধ্যরাত থেকে আগামীকাল সকাল পর্যন্ত।’

শুক্রবার বেলা ৩টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকায় ১১ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর। শুক্রবার সাড়ে ১২টা থেকে সাড়ে ৩টা পর্যন্ত ৩ ঘণ্টায় আবহাওয়া অধিদফতরের দেশের বিভিন্ন স্থানে ৪৪টি বৃষ্টি পরিমাপক কেন্দ্রের মধ্যে ২৮টি কেন্দ্রে বৃষ্টির তথ্য রেকর্ড করা হয়েছে। এ সময়ে সবচেয় বেশি বৃষ্টি হয়েছে ময়মনসিংহে ৫৬ মিলিমিটার।

আরএমএম/জেডএ/পিআর

টাইমলাইন