তালেবানের সঙ্গে হাত মিলিয়েছেন আশরাফ গানির ভাই

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮:৫০ এএম, ২২ আগস্ট ২০২১
ছবি: সংগৃহীত

তালেবান কাবুল দখলের জেরে দেশ ছেড়ে পালিয়েছেন পশ্চিমাসমর্থিত আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ গানি। কিন্তু তার ভাই হাশমত গানি উল্টো সাফাই গেয়েছেন এ সশস্ত্র গোষ্ঠীটির পক্ষেই। আফগান ব্যবসায়ী-রাজনীতিবিদদের দেশ ছেড়ে না পালানোর অনুরোধ জানিয়ে তালেবান সরকারকে মেনে নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। গত শনিবার কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরাকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এসব কথা বলেছেন আশরাফ গানির আপন ছোটভাই।

কাবুলের বাড়ি থেকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে হাশমত গানি বলেছেন, বিদেশি সেনা প্রত্যাহার শেষ হওয়ার মুহূর্তে আফগানিস্তানের জনগণের জন্যই কাবুলে নতুন শাসনের প্রয়োজন ছিল।

পেশায় ব্যবসায়ী ও আফগানিস্তানের যাযাবর কোচি জনগোষ্ঠীর সর্দার হাশমত গানি কয়েকদিন ধরেই তালেবান নেতাদের সঙ্গে দেখা-সাক্ষাৎ চালিয়ে যাচ্ছেন। এরই মধ্যে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এর কিছু ছবিও ছড়িয়ে পড়েছে।

jagonews24

আফগান প্রেসিডেন্টের ছোটভাই জানিয়েছেন, তিনি প্রভাবশালী রাজনীতিবিদ, সংস্কৃতিকর্মী ও ব্যবসায়ীদের প্রতি বিশেষ বার্তা হিসেবে তালেবানের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তরকে স্বীকৃতি দিচ্ছেন।

হাশমত বলেন, যেসব ব্যবসায়ী আফগানিস্তানের স্কুল, হাসপাতাল, দোকানপাট, বিশ্ববিদ্যালয়সহ অন্যান্য উদ্যোগের পেছনে বিনিয়োগ করেছেন, তারাও দেশ ছেড়ে পালানোর চেষ্টা করছেন। এটি আফগান অর্থনীতি ও সামগ্রিক ভবিষ্যতের জন্য ধ্বংসাত্মক।

গত ১৫ আগস্ট তালেবান কাবুল দখলের আগমুহূর্তে দেশ ছেড়ে পালান আশরাফ গানি। তবে হাশমত জানিয়েছেন, এমন ইচ্ছা তার কখনোই জাগেনি। তিনি বলেন, আমি পালিয়ে গেলে আমার লোকদের কাছে, আমার গোষ্ঠীর কাছে কী হয়ে যেতাম… আমার শিকড় এখানে, প্রয়োজনের সময় আমি পালিয়ে গেলে জনগণের কাছে তা কী বার্তা দিতো?

অবশ্য বড়ভাই জীবিত অবস্থায় দেশ ছেড়ে পালানোয় খুশিই হয়েছেন হাশমত গানি। তার মতে, যদি তিনি (আশরাফ) তিনি কোনোভাবে হত্যার শিকার হতেন, তাহলে পরিস্থিতি আরও খারাপ হতো।

কেএএ/জিকেএস

টাইমলাইন  

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]