মৃত্যুঝুঁকি নিয়েই কাবুল থেকে ফেরানো হচ্ছে মানুষকে: বাইডেন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:৩৫ এএম, ২১ আগস্ট ২০২১
ছবি : সংগৃহীত

আফগানিস্তানের কাবুল বিমানবন্দরে এখনও হাজার হাজার মানুষের ভিড়। যুক্তরাষ্ট্রের সেনারা কূটনীতিক, নাগরিক ও আফগান দোভাষীদের ফিরিয়ে নিতে কাজ করছেন। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছেন, এভাবে গণহারে বিমানে পরিবহন ইতিহাসে ‘সবচেয়ে বড় এবং জটিল এয়ারলিফট অপারেশন’। পুরো প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা নিয়েও সংশয় প্রকাশ করেছেন তিনি। খবর বিবিসির।

হোয়াইট হাউজে শুক্রবার এক ভাষণে বাইডেন বলেছেন, আকাশপথে দ্রুত সময়ে বিপুলসংখ্যক মানুষকে জরুরিভিত্তিতে অপসারণের এ অভিযানে মৃত্যুঝুঁকি রয়েছে। এরমধ্যে ১৩ হাজার মানুষকে ফেরত নেওয়া হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে নিজের ছুটিও সংক্ষিপ্ত করেছেন তিনি।

US-Biden-2

প্রেসিডেন্ট বাইডেন বলেন, দেশে ফিরতে চাওয়া প্রত্যেক আমেরিকানকে ফিরিয়ে আনবোই আমরা। এ সময় তিনি আরও বলেন যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকদের ফিরিয়ে আনার ক্ষেত্রে কোনো বাঁধা সৃষ্টি করছে না তালেবান।

আফগানিস্তান তালেবানের নিয়ন্ত্রণে যাওয়ার পর আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বড় ধরনের ধাক্কা খেয়েছেন প্রভাবশালী যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বাইডেন। এর আগে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বাইডেন বলেন, আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহারে তার সিদ্ধান্তে কোনো ভুল ছিলো না। যদিও দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, আফগানিস্তানে যাওয়া মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে ছিলো সবচেয়ে নিকৃষ্ট সিদ্ধান্ত। তিনি সেনা প্রত্যাহারের বিষয়টি অন্যভাবে সমাধান করতেন বলেও দাবি করেন।

আফগানিস্তান গত রোববার তালেবানের নিয়ন্ত্রণে যাওয়ার পর ভয় আর শংকার মধ্যে দেশ ছাড়তে কাবুল বিমানবন্দরে ভিড় করতে থাকেন হাজার হাজার মানুষ। এখন পর্যন্ত সেখানে ১৩ জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। দেশ ছাড়তে বিমানের অপেক্ষায় আছেন আরও অনেকে।

এসএনআর/এমএস

টাইমলাইন  

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]