‘কংগ্রেসের ইশতেহার বিপজ্জনক, টুকরো টুকরো হবে ভারত’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:৩৩ পিএম, ০২ এপ্রিল ২০১৯

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে ভারতের প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেসের প্রকাশিত ইশতেহারকে ‘বিপজ্জনক প্রতিশ্রুতি’ বলে আখ্যায়িত করেছেন দেশটির অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি। তিনি বলেন, কংগ্রেসের এই ইশতেহার অবাস্তব; যা বাস্তবায়ন করা সম্ভব নয়। দেশের অখণ্ডতা ক্ষুন্ন হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

মঙ্গলবার কংগ্রেসের ইশতেহার প্রকাশের পর সংবাদ সম্মেলন ডাকেন অরুণ জেটলি। সম্মেলনে তিনি বলেন, গত ৭২ বছরে বিভিন্ন প্রান্তে সহিংসতার সাক্ষী হয়েছে ভারত। কংগ্রেসের নীতিহীন সিদ্ধান্তের মাসুল গুণছে জম্মু-কাশ্মীরের সাধারণ মানুষ। কিন্তু কংগ্রেস তার ইশতেহারে অস্ত্র আইন সংশোধনের কথা বলছে। যা দেশের জন্য বিপজ্জনক।

অস্ত্র আইন সংশোধনে কংগ্রেসের প্রতিশ্রুতিতে উদ্বেগ প্রকাশ করেন অরুণ জেটলি। তিনি বলেন, এই সিদ্ধান্তের ফলে নতুন করে জঙ্গি-মাওবাদীদের কার্যকলাপ মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে পারে।

আরও পড়ুন : মুসলিম ভোটারদের কষ্ট ভাগ করে নিতে রোজা রাখবেন মিমি

জেটলির দাবি, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির শাসনামলে মাওবাদী উপদ্রব ও জঙ্গি হামলা কমেছে। জম্মু-কাশ্মীরে শান্তি প্রতিষ্ঠায় কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। তার প্রশ্ন, ইশতেহারে কেন কাশ্মীরের পণ্ডিতদের নিয়ে কিছু বলা হয়নি?

কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী ইশতেহার প্রকাশ করে বলেন, প্রত্যেক কৃষক পরিবারকে বছরে ৭২ হাজার টাকা করে দেয়া হবে। তার দাবি দারিদ্র সীমার উপরে ২৫ শতাংশ মানুষ উঠে আসবে। জেটলি প্রশ্ন তোলেন, টাকা কীভাবে আসবে; সেটি ইশতেহারে স্পষ্ট করা হয়নি।

তার মতে, দেশের আর্থিক বৃদ্ধির সঙ্গে অর্থের যোগান হবে বলে সাবেক অর্থমন্ত্রী পি চিদাম্বরম যে দাবি করেছেন, তা হাস্যকর। ইউপিএ সরকারের আমলে মুদ্রাস্ফীতি বৃদ্ধি পেয়েছিল ১০ দশমিক ৪ শতাংশ।

আরও পড়ুন : রাহুল গান্ধী হিন্দু নন, দাবি বিজেপির

জিএসটি নিয়ে কংগ্রেসকে তুলোধনা করেন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি। ইশতেহারে কংগ্রেস প্রতিশ্রুতি দিয়েছে, পণ্য ও পরিষেবা করের পাঁচটি ধাপ সরিয়ে সরলীকরণের পথে যাবে তাদের সরকার।

কিন্তু জেটলির প্রশ্ন, চাল ও মার্সিডিজের জিএসটি এক করতে চাইছে কংগ্রেস। কংগ্রেসের কর্মসংস্থান নিয়ে প্রতিশ্রুতিকে হাস্যকর বলে কটাক্ষ করেন জেটলি।

এসআইএস/এমএস

টাইমলাইন  

আপনার মতামত লিখুন :