কাশ্মীরে সড়ক বন্ধ করে ভোট নেয়া হচ্ছে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:২৩ এএম, ১১ এপ্রিল ২০১৯
সড়ক বন্ধের সময় অতি জরুরি যোগাযোগের জন্য হাতের তালুতে সীল মারার মাধ্যমে চলাচলের অনুমতি দেয়ার অভিনব পদ্ধতি এটি।

ভারতে লোকসভা নির্বাচন নিয়ে গোটা দেশে তুমুল প্রচারণা চললেও জম্মু-কাশ্মীর মহাসড়ক সপ্তাহে দুদিন বন্ধ ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। সাধারণ পরিবহণ বন্ধ থাকায় বিপাকে স্থানীয় বাসিন্দারা। বৃহস্পতিবার এমন পরিস্থিতির মধ্যেই কাশ্মীরের ছয়টি লোকসভা আসনের দুটিতে ভোট হচ্ছে।

আগামী ৩১ মে পর্যন্ত রবি ও বুধবার জম্মু-শ্রীনগর সড়কের বড় অংশ সাধারণ পরিবহনের জন্য বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্যপালের প্রশাসন। উদ্দেশ্য নির্বাচন। রাজ্যটির এই প্রধান সড়ক বন্ধ থাকায় বিপাকে স্থানীয়রা। উপত্যকাটির মানুষরা হাসপাতাল কিংবা স্কুলে পৌঁছাতে নাজেহাল হচ্ছেন।

বুধবার সকালে শ্রীনগরের সড়কে কিছু ব্যক্তিগত গাড়ি চললেও দক্ষিণ কাশ্মীরের মহাসড়ক ছিল জনবিহীন। বিভিন্ন এলাকা থেকে মহাসড়কে ওঠার সংযোগ সড়ক বন্ধ রেখেছে প্রশাসন। কাঁটাতার দিয়ে পথ অবরোধ করা হয়েছে। বেশ কিছু অঞ্চলে কাঁটাতারের পাশে থাকা সেনাবাহিনীর সঙ্গে বিতর্কে জড়াতে দেখা গেছে স্থানীয় বাসিন্দাদের।

তবে বিশেষ ক্ষেত্রে সাধারণ পরিবহনকে ছাড় দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রশাসন। ছাড় কার্যকর করতে নানা এলাকায় ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ করা হয়েছে। সড়ক ব্যবহারে বিশেষ অনুমতি দেয়া হলে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির হাতের তালুতে ছাপ দেয়া হচ্ছে। এই পদ্ধতির বিরুদ্ধে আপত্তি জানিয়ে অনেকে বলছে, হিটলারের জার্মানি বা ইসরায়েলি দখলে থাকা ফিলিস্তিনের কথা মনে করিয়ে দিচ্ছে এটি।

সড়ক বন্ধ রাখার এমন সিদ্ধান্তের সমালোচনা করেছেন সাবেক সেনাপ্রধান বেদপ্রকাশ মালিক। তিনি বলেন, ‘এটা বোকামি। এই পদক্ষেপের কারণে কাশ্মীরিদের ‘মন জয়ের’ যে চেষ্টা সেনাবাহিনী দীর্ঘদিন ধরে করে আসছে তা ব্যর্থ হয়ে যাবে। স্থানীয় গোয়েন্দা নেটওয়ার্ককে শক্তিশালী করে ও সুরক্ষা বাড়িয়ে সমস্যার সমাধান করতে হবে।’

এসএ/জেআইএম

টাইমলাইন  

আপনার মতামত লিখুন :