গুলি-বোমা-অগ্নিকাণ্ডের পর কলকাতায় ভোট হচ্ছে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:০২ এএম, ১৯ মে ২০১৯

ভারতে সপ্তম দফার নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গের ৯টি আসনে ভোট হচ্ছে। শেষ দফায় ভোট দিচ্ছেন কলকাতা শহর ও পার্শ্ববর্তী উত্তর চব্বিশ পরগণার ভোটাররা। তবে শনিবার রাতে তৃণমূল-বিজেপির দফায় দফায় সংঘর্ষে রণক্ষেত্রে রুপ নিয়েছে উত্তর চব্বিশ পরগণা। 

কলকাতার দৈনিক আনন্দবাজার প্রত্রিকার প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, উত্তর চব্বিশ পরগণায় ভোটের আগের রাতে গুলি ও বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। তাছাড়া গাড়িতে আগুনও ধরিয়ে দেয়ার খবর পাওয়া গেছে।

কড়া নিরাপত্তার মধ্যে শেষ বারের মতো ভোটগ্রহণের আগে এমন সহিংস পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ভারতের কেন্দ্রীয় বাহিনী ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়। গোটা এলাকায় বিপুলসংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। 

বিজেপির অভিযোগ, পশ্চিমবঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের তৃণমূল কংগ্রেস পরিকল্পিতভাবে এমন হামলার ঘটনা ঘটিয়েছে৷ যদিও বিজেপির অভিযোগ উড়িয়ে তৃণমূল দাবি করেছে, এসব বিজেপি প্রার্থী শহরে এসব তান্ডব করে ঘটিয়েছে।

বারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী অর্জুন সিংয়ের অভিযোগ, বেশ কিছু দিন ধরেই ভাটপাড়া বিধানসভার তৃণমূল প্রার্থী মদন মিত্র কামারহাটি থেকে মানুষ এনে পরিস্থিতি অস্থিতিশীল করার চেষ্টা করছিলেন। তারাই এই ঘটনা ঘটিয়েছে।

ভারতের লোকসভা নির্বাচনে সপ্তম তথা শেষ দফার ভোট শুরু হয়েছে রোববার সকালে। দেশটিতে আজ সাতটি রাজ্য এবং একটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের মোট ৫৯টি লোকসভা আসনের ভোটাররা তাদের পছন্দের প্রার্থী নির্বাচিত করবেন। আজ ভাগ্য নির্ধারণ হবে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির।

আজকের শেষ দফায় পঞ্জাব এবং হিমাচল প্রদেশের সব লোকসভা আসনের পাশাপাশি বিহার, ঝাড়খণ্ড, মধ্যপ্রদেশ, উত্তর প্রদেশ, পশ্চিমবঙ্গ এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল চণ্ডীগড়ে ভোট অনুষ্ঠিত হচ্ছে। 

দেশটির সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ প্রক্রিয়া শেষ হবে সন্ধ্যায়। দিল্লির ক্ষমতায় এবার কারা বসবে তার জন্য অবশ্য অপেক্ষা করতে হবে আরও তিনদিন। কেননা ভোট গণনা করে ফলাফল প্রকাশ করা হবে আগামী ২৩ মে বৃহস্পতিবার।

এসএ/জেআইএম

টাইমলাইন