উন্নয়নের স্পিড ব্রেকার দিদি : মোদি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:১৩ পিএম, ০৭ এপ্রিল ২০১৯

ভারতের আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে তৃতীয়বারের মতো পশ্চিমবঙ্গের কোচবিহারে জনসভা করতে এসে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী  মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে এক হাত নিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এই জনসভায় মোদি বলেন, কোচবিহারের উন্নয়নে একশ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। উন্নয়ন দ্রুতগতিতে ঘটছে। কিন্তু এখানে স্পিড ব্রেকার দিদি আছেন; যিনি রাতে ঘুমাতে পারেন না। মানুষের ভরসাতেও স্পিড ব্রেকার লাগিয়ে দিয়েছেন দিদি।

দেশটির ১৭তম লোকসভা নির্বাচনে প্রথম দফায় ১১ এপ্রিল ভোটগ্রহণ শুরু হবে। শেষ হবে আগামী ১৯ মে। সাত দফায় অনুষ্ঠিত এই নির্বাচনের চূড়ান্ত ফল ঘোষণা করা হবে ২৩ মে।

নির্বাচন ঘিরে তুমুল বাকযুদ্ধ চলছে দেশটির ক্ষমতাসীন ও বিরোধী দলীয় রাজনৈতিক দলগুলোর নেতাদের মধ্যে। রোববার কোচবিহারের রাসমেলা ময়দানের জনসভায় মমতাকে স্পিড ব্রেকার দিদি আখ্যা দিয়ে মোদি বলেন, অসম্ভব আজ সম্ভব হয়েছে। আর এটাই নতুন ভারত।

আরও পড়ুন : ধর্ষিতাকে বিচারকের প্রশ্ন : পা জোড়া করেছিলেন?

ভারতের এই প্রধানমন্ত্রী বলেন, দিদি ভয় পেয়েছেন। নির্বাচন কমিশনের ওপর রাগ দেখাচ্ছেন। এটাই তার প্রমাণ। এর আগের সরকার সেনাবাহিনীর কর্মকর্তাদের পরামর্শের পরও আতঙ্কবাদীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়নি। শুধু জওয়ানরা শহীদ হয়েছেন।

‘নতুন ভারত আতঙ্কবাদীদের সঙ্গে লড়াই করার ক্ষমতা রাখে, সাহস রাখে। আতঙ্কবাদীদের ঘরে ঢুকে সন্ত্রাসীদের খতম করে! অসম্ভবকে সম্ভব করেছে নতুন ভারতের সরকার। দিদি ও তার সঙ্গীরা তাই নাটক করেছেন।’

তিনি বলেন, ছোট বাচ্চার মতো আচরণ করে নির্বাচনে জেতা যায় না। পশ্চিমবঙ্গে পিসি-ভাইপোর জুটি দুর্নীতি, চাঁদাবাজি, গুন্ডামি করছে। সবার ভরসা ভেঙে দিয়েছেন দিদি। এটা ভারতের অপমান। শহীদদের অপমান।

দিদি এমন মানুষদের সহযোগিতা করছেন, যারা ভারতে দু’জন প্রধানমন্ত্রী চান। পশ্চিমবঙ্গের ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৃণমূল কংগ্রেসের প্রতীক জোড়া ফুলের সমালোচনা করেন মোদি।

আরও পড়ুন : জনসভায় মোদি বললেন, ‘আমরা চৌকিদার’, জবাব এল ‘চোর হ্যায়’

তিনি বলেন, রোজ বললে মানুষ ফুলের কথা মনে করেন। কিন্তু এখানে রোজ মানে কাঁটা। নারদ মুনি ত্রিভুবনে পরিচিত। পশ্চিমবঙ্গে তার পরিচিতি কেলেঙ্কারিতে। মা সারদাকে সারা দেশ পূজা করে। কিন্তু দিদি বাংলায় সারদা কেলেঙ্কারি দিয়েছেন।

বিজেপিকে ভোট দেয়ার আহ্বান জানিয়ে বক্তব্য শেষ করেন মোদি। এসময় তিনি বলেন, আপনারা যে যেখানে ভোট দেবেন, সেটা সরাসরি মোদির খাতে যাবে। মজবুত সরকারের জন্য মোদির হাত শক্ত করতে হবে। দেশকে মজবুত করার জন্য মজবুত সরকার চাই।

সূত্র : জিনিউজ, এনডিটিভি।

এসআইএস/এমএস

টাইমলাইন  

আপনার মতামত লিখুন :