মোদির জন্য সকাল থেকেই উপোস ছিলেন যশোদাবেন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:৫৫ পিএম, ২৩ মে ২০১৯

পুরো দেশের মানুষ যখন টিভির সামনে বসে অপেক্ষা করছে যশোদাবেন মোদি তখন অম্বাজি মাতার মন্দিরে পূজা দিচ্ছেন, প্রার্থনা করছেন। নরেন্দ্র মোদির জয়ের জন্যই মূলত বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই প্রার্থনা করে যাচ্ছেন যশোদাবেন। বৃহস্পতিবার দুপুর আড়াইটার দিকে যশোদাবেন সংবাদমাধ্যমকে জানান, তিনি খুব খুশি। যশোদাবেন বলেন, আমি তো এটাই প্রার্থনা করে এসেছি।

আরও পড়ুন: নুসরাত-মিমির বাজিমাত

বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই উপবাসও করছেন যশোদাবেন। একেবারেই নির্জলা। দেশজুড়ে সকাল ৮টায় ভোটগণনা শুরু হয়েছে। প্রথম এক ঘণ্টা টিভির দিকে তাকাননি যশোদাবেন। স্নান সেরে সাড়ে ৮টার দিকে বেরিয়ে পড়েছিলেন অম্বাজি মাতার মন্দিরের উদ্দেশে।

যশোদাবেন বললেন, ‘আজ বৃহস্পতিবার গুরুবার। মানে গুরুর দিন। আমি গুরুর জন্য উপোস করছি। একই সঙ্গে অম্বাজি মাতা এবং মহাকালেশ্বরের জন্যও। একটু থেমে বললেন, মোদি সাহেব যেন আবারও সরকারে আসেন সেজন্য ব্রত করেছি। উপোস ওর জন্যও।

আরও পড়ুন: ভোটের লড়াই শেষে মিষ্টির লড়াই

নির্বাচনের আগেই জানা গিয়েছিল নরেন্দ্র মোদির স্ত্রী যশোদাবেন পূজা আর উপোসের মধ্যেই থাকেন। নিয়মিত মন্দিরে যান। তার মতে, এটাই তো আছে জীবনে। ভগবানকে মনপ্রাণ দিয়ে ডাকেন তিনি।

বৃহস্পতিবারও এর অন্যথা হলো না। ভোর থেকে রাখা উপবাস ভাঙবেন সব কেন্দ্রের ফল প্রকাশ্যে আসার পর। সব ফল না জানা পর্যন্ত উপোস ভাঙবেন না বলেই জানালেন যশোদাবেন।

বৃহস্পতিবার ভারতের ১৭তম লোকসভা নির্বাচনের ভোট গণনা চলছে। প্রাথমিক ফল বলছে, দেশটির ক্ষমতাসীন ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) ভূমিধস জয়ে টানা দ্বিতীয় মেয়াদে সরকার গঠন করতে যাচ্ছে। সর্বশেষ তথ্য বলছে, বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট ৫৪২ আসনের মধ্যে ২৯৪টিতে জয়ী হয়েছে।

টিটিএন/পিআর

টাইমলাইন  

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]