অভিনেতা কমল হাসানকে জুতা-পাথর-ডিম নিক্ষেপ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪:৪১ পিএম, ১৮ মে ২০১৯
বলিউড অভিনেতা কমল হাসান ও তার মেয়ে শ্রুতি হাসান

লোকসভা নির্বাচনের প্রচারণায় গিয়ে বলিউড অভিনেতা ও রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব কমল হাসান হেনস্থার শিকার হয়েছেন। দক্ষিণ ভারতের তামিল নাডু রাজ্যে একটি নির্বাচনী সভা চলাকালীন দুজন ব্যক্তি তার গায়ে জুতা, পাথর আর ডিম নিক্ষেপ করেছে।

তামিল নাডুর আরাভাকুরুছি নামক স্থানে গত বৃহস্পতিবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে। সভা শেষে কমল হাসান ডায়াস থেকে নামার সময় তাকে লক্ষ্য করে ডিম, জুতা আর পাথর ছুড়ে মারেন দুজন ব্যক্তি। জুতা নিক্ষেপকারী ওই দুই ব্যক্তিকে আটক করে পুলিশি হেফাজতে নেয়া হয়েছে।

তবে ঘটনার পর কমল হাসানের দল মাক্কাল নিধি মাইয়ামের (এমএনএম) ব্যক্তিগত নিরাপত্তারক্ষীরা ওই দুই ব্যক্তির ওপর পাল্টা আক্রমণ করে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ওই দুজনকে উদ্ধার করে। এখন তারা পুলিশের হেফাজতে আছেন।

ঘটনার পর কমল হাসান এক টুইট বার্তায় বলেন, ‘প্রিয় এমএনএম পরিবার ও ভক্তরা, এটা আমাদের শিষ্টতা এবং ভালো আচরণের একটা এসিড টেস্ট। তাদের অযথা চিৎকার শুনবেন না এবং তাদের সহিংসতার কাছেও পরাস্ত হবেন না। তারা চরমপন্থী এবং সত্য থেকে বিচ্যুত।’

পুলিশ বলছে, যারা তাকে (কমল হাসান) লক্ষ্য করে জুতা নিক্ষেপ করেছে তাদের হাজতে রাখা হয়েছে। তবে জুতা নিক্ষেপ করা হলেও তা কমলের গায়ে না লেগে ডায়াসের নিচে পড়ে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

কমল হাসানকে কেন আক্রমণ করা হয়েছে তা জানা যায়নি। তবে গত রোববার তিনি আরাভাকুরুছি সংসদীয় আসনে তার দলের প্রার্থীর প্রচারণায় গিয়ে মহাত্মা গান্ধীর হত্যাকারী সম্পর্কে বলেন, ‘স্বাধীন ভারতের প্রথম চরমপন্থী ছিল একজন হিন্দু। তিনি মহাত্মা গান্ধীর হত্যাকারী নথুরাম গডসে। সেখান থেকেই চরমপন্থার উত্থান।’

এসএ/এমএস

টাইমলাইন