ভালো করেছ বন্ধু : মোদিকে নেতানিয়াহু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪:৪৬ পিএম, ২৩ মে ২০১৯

ভারতের লোকসভা নির্বাচনে দেশটির ক্ষমতাসীন দল বিজেপির আবারও ক্ষমতায় আসার ইঙ্গিত পেয়েই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বিশ্বের বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রনেতারা। শুভেচ্ছা জানানোর এই তালিকায় রয়েছে, ইসরায়েল, চীন, রাশিয়া, ভূটান, শ্রীলঙ্কা-সহ আরো অনেক দেশ।

শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহে এক টুইটে বলেন, বিশাল জয়ের জন্য নরেন্দ্র মোদিকে শুভেচ্ছা। আগামী দিনে একসঙ্গে কাজ করার দিকে তাকিয়ে রয়েছি আমরা।

ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু টুইটে শুভেচ্ছা জানান নরেন্দ্র মোদিকে। তিনি বলেন, ভারত এবং ইসরায়েলের মধ্যে বন্ধুত্বের ধারাবাহিকতা বজায় থাকবে। 

টুইটে তিনি বলেন, বন্ধু নরেন্দ্র মোদি, চিত্তাকর্ষক এই জয়ের জন্য আন্তরিক অভিনন্দন। বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ অর্থনীতির দেশ হিসেবে এটা আপনার যোগ্যতার পরীক্ষার ফল। আমরা ইসরায়েল এবং ভারতের দ্বিপাক্ষিক গভীর বন্ধুত্বকে আরো শক্তিশালী করবো। ভালো করেছো বন্ধু। 

নির্বাচনী ফলাফলে এগিয়ে থাকায় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে এক টেলিগ্রাম বার্তায় শুভেচ্ছা জানিয়েছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। চিরবৈরী প্রতিবেশী চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং এক শুভেচ্ছা বার্তায় মোদিকে অভিনন্দন জানিয়েছেন।

ভুটানের রাজা জিগমে খেসার নামগয়েল ওয়াংচুক ও জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে টেলিফোনে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মোদিকে। শুভেচ্ছা জানিয়েছেন নেপালের প্রধানমন্ত্রী কে পি শর্মা ওলি।

প্রাথমিক ফলে বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট ৫৪২ আসনের মধ্যে ২৯৪টিতে এগিয়ে রয়েছে। বিজেপির বিশাল ব্যবধানের এই জয়ের পর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে একটি টুইট করেছেন। এতে তিনি বলেছেন, আবারও ভারত জিতেছে।

২০১৪ সালের সাধারণ নির্বাচনে ২৮২ আসনে জয়ের রেকর্ড ভেঙে ইতিহাস গড়ছে বিজেপি। এনডিটিভি বলছে, বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট ৩৪২ আসনে জয় পেয়েছে। অন্যদিকে দেশটির প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউপিএ জোট পেয়েছে ৯৪ এবং অন্যান্য দলগুলো ১০৬টি আসনে এগিয়ে রয়েছে।  

গত ১১ এপ্রিল শুরু হয়ে ১৯ মে মোট সাত ধাপে লোকসভা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়। মোট ভোটার ছিল প্রায় ৯০ কোটি। এক হাজার ৮৪১টি রাজনৈতিক দলের আট হাজারেরও বেশি প্রার্থী নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন। এর মধ্যে নারী প্রার্থীর সংখ্যা ৭২০ এবং তৃতীয় লিঙ্গের প্রার্থী ছিলেন চারজন। ১৯৫১-৫২ সালে ভারতের প্রথম লোকসভা নির্বাচন সম্পন্ন হতে সময় লেগেছিল তিন মাস।

এসআইএস/পিআর

টাইমলাইন  

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]