টুইটে বাংলায় কী বললেন মোদি?

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:৩৬ পিএম, ০৩ এপ্রিল ২০১৯

ভারতের আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের ডামাডোল বাজছে। বিশ্বের সর্ববৃহৎ নির্বাচনযজ্ঞের সময় দ্রুত ঘনিয়ে আসছে। ভোটারদের মন জয় করতে বিভিন্ন ধরনের কৌশল, প্রতিশ্রুতির অঙ্গীকার করছে ক্ষমতাসীন ও বিরোধী দলগুলো। তবে এতে একধাপ এগিয়ে রয়েছেন ক্ষমতাসীন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) নির্বাচনী প্রচারে বুধবার পশ্চিমবঙ্গে একাধিক সমাবেশে অংশ নিতে দিল্লি থেকে রওয়ানা হয়েছেন প্রধানমন্ত্রী মোদি। প্রথমে শিলিগুড়ি, পরে কলকাতায় ব্রিগেডে সভা করবেন তিনি।

রাজ্যে পা রাখার আগেই ভোটারদের মন জয়ের চেষ্টায় বাংলায় টুইট করলেন প্রধানমন্ত্রী মোদি। টুইটে পশ্চিমবঙ্গের বাসন্দিাদের ‘প্রিয় বোনেরা ও ভাইয়েরা’ বলে উল্লেখ করে মোদি লিখেছেন, তিনি কিছু বক্তব্য রাখতে চান।

আরও পড়ুন : লোকসভা নির্বাচনে ঘৃণার রাজনীতিকে বিদায় দেয়ার আহ্বান বিশিষ্টজনদের

বাংলায় পর পর দুটি টুইট করেছেন ভারতের এই প্রধানমন্ত্রী। তিনি লিখেছেন, পশ্চিমবঙ্গ জুড়ে বিজেপির জনপ্রিয়তা বৃদ্ধি পেয়েছে। মানুষের দৃঢ় ভরসা রাজ্যের মানুষের সমস্যার সমাধান করতে ও স্বচ্ছ সরকার গড়তে শুধুমাত্র আমাদের দল পারে।

জিনিউজ বলছে, সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি এখন নিশানা করেছে পশ্চিমবঙ্গকে। রাজ্যে পদ্মবাগান তৈরিতে মরিয়া বিজেপি নির্বাচনী প্রচারের শুরু থেকেই অল আউট অ্যাটাকে নেমেছে তৃণমূল সরকারের বিরুদ্ধে।

২৯ মার্চ আলিপুরদুয়ারের সভা থেকে পশ্চিমবঙ্গে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সময় শেষ বলে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছেন বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ।

আরও পড়ুন : ইশতেহার প্রকাশের কয়েক মিনিটেই কংগ্রেসের ওয়েবসাইট ক্র্যাশ 

তিনি দাবি করেছেন, পশ্চিমবঙ্গে এবার বিজেপি ৪২টি লোকসভা আসনের মধ্যে ২৩টি আসন পাবে। অমিত শাহের সভার ঠিক ৫ দিনের মাথায় রাজ্যে আসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

এদিকে, মোদির এই জনসভায় রাজ্যের নেতা-কর্মী-সমর্থকদের আনতে ৫৩ লাখ টাকা খরচ করে চারটি বিশেষ ট্রেন ভাড়া করেছে বিজেপি। সেই সব ট্রেনে কর্মী-সমর্থকদের হাওড়া ও কলকাতা স্টেশনে আনার ব্যবস্থা করেছে।

এসআইএস/আরআইপি

টাইমলাইন  

আপনার মতামত লিখুন :