মোদিকে রাহুল গান্ধীর চ্যালেঞ্জ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪:৩২ পিএম, ০২ এপ্রিল ২০১৯

লোকসভা নির্বাচন যত ঘনিয়ে আসছে ভারতের প্রধান দুটি বিরোধী দল যেন একে অপরের বিরুদ্ধে তোপ দাগাতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে। মঙ্গলবার ইশতেহার প্রকাশ করেছে কংগ্রেস। দলটির সভাপতি রাহুল গান্ধী চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে বলেছেন, যদি সাহস থাকে তাহলে দুর্নীতি, উন্নয়ন, জাতীয় নিরাপত্তা আর পররাষ্ট্র নীতি নিয়ে মোদির সঙ্গে আলোচনা করতে চান তিনি।

প্রধানমন্ত্রী নরন্দ্রে মোদির প্রতি ইঙ্গিত করে রাহুল গান্ধী বলেন, ‘মোদি সাহেব নিজেকে লুকিয়ে রেখেছেন এখন। তাছাড়া তিনি যথেষ্ট ভয়ও পেয়েছেন। তিনি খোলামেলা কোনো বির্তর্কে অংশ নিতে চাচ্ছেন না। আমি তাকে চ্যালেঞ্জ করছি- আসুন জাতীয় নিরাপত্তা, পররাষ্ট্রনীতি আর দুর্নীতি নিয়ে খোলামেলা আলোচনা করি।’

কংগ্রেস সভাপতি ও দলটির সম্ভাব্য প্রধানমন্ত্রী প্রার্থী রাহুল গান্ধী আরও বলেন, ‘নরেন্দ্র মোদি মানুষকে ফাঁপা বুলি শুনিয়ে নিজেকে লুকিয়ে রাখছেন। কিন্তু তিনি সেটা আর করতে পারবেন না। চৌকিদার শুধু নিজেকে লুকিয়ে রাখতে পারে কিন্তু দৌড়াতে পারে না।’

লোকসভা নির্বাচনে কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী উত্তর প্রদেশের আমেথি ছাড়াও ভোটে লড়বেন কেরালার ওয়েনাড থেকে। রাহুল গান্ধী তার দুই আসন থেকে নির্বাচন নিয়ে তার মোদির তোলা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। মোদির অভিযোগ, কংগ্রেস প্রেসিডেন্ট উত্তর প্রদেশে হারার আশঙ্কা করেই কেরালা থেকেও নির্বাচনের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

রাহুল গান্ধী মোদির সরকারের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে বলেন, বিজেপির নেতৃত্বাধীন ক্ষমতাসীন সরকার বেকারত্ব হ্রাস ও কৃষি খাতকে কোনো গুরত্বই দেয়নি। আর এর মাধ্যমে তারা কৃষক, ছোট ব্যবসায়ীদের নিঃস্ব করে দিয়েছেন। অথচ তারা গত নির্বাচনের আগে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন বছরে দুই কোটি বেকারকে চাকরির ব্যবস্থা করে দেবেন।

কংগ্রেস তাদের নির্বাচনী প্রচারণায় ক্ষমতাসীন বিজেপির বিরুদ্ধে যে কয়েকটি বিষয়কে মোক্ষম অস্ত্র হিসেবে বেঁছে নিয়েছেন তার একটি হলো বেকারত্ব সমস্যা। তাছাড়া মোদির রাফাল যুদ্ধবিমান কেনা নিয়ে দুর্নীতি ও কৃষকদের ঋণের মতো বিষয়গুলো নিয়ে তোপ দাগছে।

এসএ/জেআইএম

টাইমলাইন