‘ঢামেকে ডেঙ্গু পরীক্ষা করতে যাওয়া রোগীর ৮০% ঢাবি শিক্ষার্থী’

মনিরুজ্জামান উজ্জ্বল
মনিরুজ্জামান উজ্জ্বল মনিরুজ্জামান উজ্জ্বল , বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৩:৩৮ পিএম, ২৯ জুলাই ২০১৯

ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ডেঙ্গু সন্দেহে রক্ত পরীক্ষা করতে যাওয়া রোগীর ৮০ শতাংশই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শিক্ষার্থী বলে জানিয়েছেন হাসপাতালের এক চিকিৎসক। গত কয়েকদিন যাবত প্রতিদিনই সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন আবাসিক হল থেকে জ্বরাক্রান্ত ছাত্র-ছাত্রীরা ডেঙ্গু পরীক্ষা করাতে ছুটছেন।

বিশেষ করে মাত্র কয়েকদিন আগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিন্যান্স বিভাগের ছাত্র ফিরোজ কবির স্বাধীন নামে এক শিক্ষার্থী ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যাওয়ার পর থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলের শিক্ষার্থীদের মধ্যে ডেঙ্গু ভীতি দেখা দিয়েছে।

dmc-(2).jpg

সামান্য জ্বর হলেই চিকিৎসকের কাছে ছুটছেন তারা। প্রথমবার রক্ত পরীক্ষায় (ডেঙ্গু এনএসওযান) নেগেটিভ এলেও অনেকেই আতঙ্কে দ্বিতীয়বার রক্ত পরীক্ষা করাচ্ছেন।

ঢাকা মেডিকেল কলেজের ভাইরোলজি বিভাগের শিক্ষক মো.আনিসুর রহমান আজ (সোমবার) দুপুরে জাগো নিউজের সঙ্গে আলাপকালে বলেন, বর্তমানে ঢামেক ভাইরোলজি বিভাগের ল্যাবরেটরিতে প্রতিদিন গড়ে ৯০ থেকে ১০০ জন জ্বরের রোগী ডেঙ্গু পরীক্ষা করাচ্ছেন। এ সব রোগীর ৮০ শতাংশই ঢাবি শিক্ষার্থী।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশাল ক্যাম্পাস ও আবাসিক হলগুলোতে যত্রতত্র ডেঙ্গু মশার প্রজননের সহায়ক উপাদান রয়েছে উল্লেখ করে তিনি ক্যাম্পাস ও হলগুলোতে ডেঙ্গু মশার প্রজননস্থল ধ্বংস করা প্রয়োজন বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

dmc

সরেজমিনে দেখা গেছে ঢামেকের চতুর্থ তলায় ভাইরোলজি ল্যাবরেটরিতে ডেঙ্গু পরীক্ষা করাতে আসা রোগীদের লম্বা লাইন। কর্তব্যরত চিকিৎসক বলেন, অনেকেই ভয়ের কারণে সামান্য জ্বর অথবা শরীর ম্যাজ ম্যাজ করলেই ডেঙ্গু পরীক্ষা করাতে আসছেন।

ঢাবির মহসীন হলের শিক্ষার্থী আজম জানান, গত ৪দিন যাবত জ্বরে ভুগছেন। জ্বর ওঠার পরদিন ডেঙ্গু পরীক্ষা করলেও তা নেগেটিভ আসে। আজ আবার রক্ত দিয়ে যাচ্ছেন। কাল ফলাফল হাতে পাবেন। চারদিকে ডেঙ্গু রোগী বাড়ছে এ সংবাদে ভীত হয় দ্বিতীয়বার পরীক্ষা করাচ্ছেন তিনি।

এমইউ/এনএফ/এমএস

টাইমলাইন