অবহেলায় এনাম মেডিকেলে ডেঙ্গু রোগীর মৃত্যুর অভিযোগ

উপজেলা প্রতিনিধি উপজেলা প্রতিনিধি সাভার (ঢাকা)
প্রকাশিত: ০৮:৫১ পিএম, ২৯ জুলাই ২০১৯

সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ডেঙ্গু জ্বরে জুয়েল মাহমুদ নয়নের (৩৮) মৃত্যুর ঘটনায় চিকিৎসকদের দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগ উঠেছে। সোমবার ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নয়নের মৃত্যু হয়। তার মৃত্যুর পরপরই চিকিৎসকদের দায়িত্বে অবহেলা, অতিরিক্ত বিল করাসহ নানা অভিযোগ করেন নয়নের মামা শরীফ।

নিহত জুয়েল মাহমুদ নয়ন ধামরাইয়ের কুল্লা ইউনিয়নের জলিল উদ্দিনের ছেলে। তিনি মুদির দোকানের ব্যবসা করে জীবিকা নির্বাহ করতেন।

নয়নের মামা শরীফ জানান, গত ২৭ জুলাই স্বাভাবিক জ্বর নিয়ে রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যায় নয়ন ও তার পরিবার। সেখানেই ডেঙ্গুর বিষয়টি নিশ্চিত হন তারা। কিন্তু ওই হাসপাতালে বেড না পাওয়ায় ২৮ জুলাই সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে। পরে সোমবার (২৯ জুলাই) চিকিৎসাধীন অবস্থায় সেখানেই মৃত্যু হয় নয়নের।

তিনি বলেন, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বলেছিল মারা যায়নি, আমরা বলেছি মারা গেছে। তারা অক্সিজেন দিয়ে খালি ফুলিয়েছে। নয়নের হাতে দেখলাম সুই, পিঠে দেখলাম সুই। আর শরীর গরম। পরে আমরা গিয়ে অক্সিজেন খুলে ফেলি, দেখি জিহ্বায় কামড় দিয়ে রয়েছে আগেই।

হাসপাতাল থেকে ঠিক মতো চিকিৎসা দেয়া হয়েছে কি-না এমন প্রশ্নের জবাবে শরীফ বলেন, না ওরা ঠিক মতো চিকিৎসা দেয় নাই। আমরা যেদিন বলেছি মারা গেছে, ডাক্তার বলেছে না মারা যায় নাই।

তিনি আরও বলেন, আমাদের সন্দেহ গতকাল মধ্যরাতে (১টা বা দেড়টায়) মারা গেছে নয়ন। সোমবার সকাল ৮টার সময় বলেছে। আমরা লাশ নিয়ে আসতে চেয়েছি, কিন্তু আমাদের দেয়নি। খালি ঘুরিয়েছে।

নয়নের মামা শরীফ বলেন, হাসপাতালের বিল করা হয়েছে সব মিলিয়ে ৬৫ হাজার টাকা। পরে বিল কেটে ২৩ হাজার টাকা রাখা হয়েছে। এ ঘটনার পরে আমরা গোলমাল করায় সম্পূর্ণ টাকা আমাদের ফেরত দিয়েছে।

তবে এনাম মেডিকেল কলেজ অ্যান্ড হাসপাতালের ম্যানেজার মো. ইউসুফ জানান, গত ২৭ জুলাই ডেঙ্গু আক্রান্ত অবস্থায় নয়নকে আইসিইউতে ভর্তি করা হয়। কিন্তু গতকাল রাত থেকেই তার পরিবারের সদস্যরা বারবার দাবি করছিল নয়ন মারা গেছে। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থাতেই নয়নের পরিবার জোরপূর্বক তাকে অন্যখানে নেয়ার জন্য হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র নিয়ে নেয়। ছাড়পত্র নিয়ে হাসপাতাল থেকে চলে যাওয়ার মুহূর্তেই মারা যান নয়ন।

আরএআর/এমএস

টাইমলাইন