ডেঙ্গু পরীক্ষা নিয়ে মুগদা হাসপাতালে এ কী হচ্ছে?

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:১২ পিএম, ০৬ আগস্ট ২০১৯

ডেঙ্গু পরীক্ষার উপকরণ বা কিট নেই খোদ সরকারি হাসপাতালে। ফলে কোনো উপায় না পেয়ে বাড়তি টাকায় রক্ত পরীক্ষা করতে ছুটছেন বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে। এতে ভোগান্তিতে পড়েছেন রোগী ও তার স্বজনরা।

রাজধানীর ৫০০ শয্যার মুগদা জেনারেল হাসপাতালে সরেজমিনে দেখা যায়, সিট না পেয়ে রোগীরা মেঝেতে চিকিৎসা নিচ্ছেন। ওয়ার্ড ছাড়িয়ে সিঁড়ি পর্যন্ত রোগী। যেন তিল ধারণের জায়গা নেই। বাড়তি রোগীর চাপে চিকিৎসা দিতে হিমশিম খাচ্ছেন চিকিৎসকরা। প্রয়োজনীয় চিকিৎসা না পেয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন রোগীর স্বজনরা।

ফল ব্যবসায়ী হাসান তার ছোট্ট বাচ্চাকে মুগদা হাসপাতালে ভর্তি করেছেন। তিনি জাগো নিউজকে জানান, তিনদিন ধরে হালকা হালকা জ্বর আসছিল; তাই গতকাল হাসপাতালে এনেছি। তারা পরীক্ষা করে বলল অবস্থা খারাপ, তাড়াতাড়ি ভর্তি করেন। এরপর ওষুধপত্র আনতে ও বিভিন্ন পরীক্ষা করতে বলল। একটি কাগজ ধরিয়ে দিয়ে বলল দ্রুত রক্ত পরীক্ষা করতে হবে। রক্তের সি/এস পরীক্ষা। এখানে এ পরীক্ষার ব্যবস্থা নেই। বাইরে কোনো ডায়াগনস্টিক সেন্টার থেকে করতে বলল। এরপর একটা মোবাইল নম্বর দিল মালিবাগ মেডিনোভার একজনের। সকালে তাদের ফোন করলাম এখন তারা রক্ত নিয়ে গেল। রক্ত পরীক্ষার জন্য ১ হাজার ৫০০ টাকা নিল। বিকেলে রিপোর্ট দেবে।

dengu

ক্ষোভ প্রকাশ করে তিনি বলেন, রক্ত পরীক্ষা করতে বাইরে দৌড়ালে রোগী দেখব কে? সরকার বলছে, ডেঙ্গু চিকিৎসা ফ্রি। এখানে দেখছি পদে পদে টাকা লাগছে। আমরা গরিব মানুষ তাই সরকারি হাসপাতালে আসছি।

এদিকে আসিফ নামে আরেক রোগীর স্বজন জানান, সিন্ডিকেট করে মেডিকেলের লোকজন বিভিন্ন পরীক্ষা ইচ্ছা করে করছে না। আমি আমার স্ত্রীকে নিয়ে এসেছি এখান থেকে বলছে বাইরে থেকে রিপোর্ট করাতে, তাদের এখানে ব্যবস্থা নেই। এতো বড় হাসপাতাল অথচ সামান্য রক্ত পরীক্ষার ব্যবস্থা নেই এটা বিশ্বাসযোগ্য নয়। তারা আশপাশের বিভিন্ন ডায়াগনস্টিক সেন্টারের নামও বলে দিচ্ছে। তার মানে তাদের এখানে স্বার্থ আছে বলে অভিযোগ করেন রোগীর এ স্বজন।

dengu

এ বিষয়ে হাসপাতালের দায়িত্বরত চিকিৎসকরা জানান, আমাদের যতটুকু সম্ভব চিকিৎসা দিচ্ছি। কিছু করার নেই। রোগীর প্রচুর চাপ। ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা প্রতিদিনই বাড়ছে। বাড়তি চাপে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দেয়া যাচ্ছে না।

হাসপাতাল সূত্র জানায়, গতকাল ৫ আগস্ট পর্যন্ত ৩৭৫ ডেঙ্গু রোগী চিকিৎসা নিয়েছেন। এর মধ্যে হাসপাতালে ভর্তি আছেন ৩৩১ জন। নতুন করে ভর্তি ১০১ জন। এর মধ্যে ৫৫ জন রোগী চিকিৎসা নিয়ে চলে গেছেন আর মারা গেছে দুজন।

দেশের সব বেসরকারি চিকিৎসা কেন্দ্রে ডেঙ্গু রোগ সংশ্লিষ্ট টেস্টগুলোর নতুন মূল্য নির্ধারণ করে সরকার। একইসঙ্গে সরকারি হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগ সংশ্লিষ্ট সব টেস্ট বিনামূল্যে করার ঘোষণা দেয়া হয়।

সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ডেঙ্গু রোগ নির্ণয়ের জন্য ২৮ জুলাই থেকে ডেঙ্গু রোগ সংশ্লিষ্ট টেস্টগুলোর নতুন মূল্য কার্যকর হয়।

NS1 Antigen পরীক্ষার নতুন মূল্য ৫০০ টাকা। আগে এর মূল্য ছিল এক হাজার ২০০ টাকা থেকে দুই হাজার টাকা।

IgG & IgM (together) পরীক্ষার নতুন মূল্য ৫০০ টাকা। আগে এর মূল্য ছিল ৮০০ টাকা থেকে এক হাজার ৬০০ টাকা।

CBC (RBC+WBC+Platelet+Hematocrit) পরীক্ষার নতুন মূল্য ৪০০ টাকা। আগে এর মূল্য ছিল এক হাজার টাকা।

এসআই/জেএইচ/জেআইএম

টাইমলাইন