জায়গা না পেয়ে সিঁড়িতে ডেঙ্গু রোগী

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:৩০ পিএম, ২৭ জুলাই ২০১৯

হাসপাতালের শয্যা রোগীতে পূর্ণ থাকায় অনেকের ঠাঁই হয়েছে মেঝেতে। শয্যা-মেঝেতে জায়গা না পেয়ে ওয়ার্ডের বাইরে বারান্দাসহ ফাঁকা স্থানেও বিছানা করে চিকিৎসা নিচ্ছেন অনেক রোগী। রোগীর চাপ এতোই বেশি যে, অনেকেই আশ্রয় নিচ্ছেন হাসপাতালের সিঁড়িতে।

শনিবার (২৭ জুলাই) দুপুরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগে এ চিত্র দেখা যায়।

সম্প্রতি ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা মারাত্মক হারে বেড়েছে। ঢামেক হাসপাতালে গত ২৬ জুলাই সকাল ১০টা থেকে ২৭ জুলাই সকাল ১০টা পর্যন্ত ২৩৩ ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছে, যা ঢামেক হাসপাতালের ইতিহাসে সর্বোচ্চ। ২৭ জুলাই পর্যন্ত হাসপাতালে ৬৯০ ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছে।

ঢামেক হাসপাতালের নতুন ভবনের সাত ও আটতলা সিঁড়ির মাঝামাঝি জায়গায় দুটো বিছানা পাতা। তাতে মো. শাহীন নামে এক ডেঙ্গু রোগী ঘুমিয়ে আছেন। পাশে দাঁড়িয়ে তার সন্তান মো. সুমন বলেন, ‘কোথাও জায়গা না পেয়ে বাবাকে এখানে শুয়ে দিয়েছি।’

ডেঙ্গু রোগীর স্বজনরা ক্ষোভ প্রকাশ করে জানান, ডেঙ্গু আক্রান্তদের পরীক্ষা-নিরীক্ষা হাসপাতালে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই করানো সম্ভব হচ্ছে না। বাইরে বাড়তি টাকা খরচ করে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করতে হচ্ছে।

সুষ্ঠুভাবে হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা হচ্ছে না বলেও অভিযোগ করেন রোগীর স্বজনরা।

ঢামেক হাসপাতালের বাইরেও বিভিন্ন হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হচ্ছেন। বিগত কয়েক বছরের মধ্যে ২০১৮ সালে ১০ হাজারের অধিক নারী-পুরুষ ও শিশু ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হওয়ার নতুন রেকর্ড হয়েছিল। চলতি বছরের (২০১৯) পাঁচ মাসেরও বেশি সময় বাকি থাকতেই ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা গত বছরের রেকর্ড ভঙ্গ হতে চলছে। চলতি বছরের ২৫ জুলাই (বৃহস্পতিবার) পর্যন্ত ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা ৯ হাজার ২৫৬। তাদের মধ্যে চলতি মাসেই সর্বোচ্চসংখ্যক সাত হাজার ১১২ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছেন।

পিডি/এএইচ/এমএস

টাইমলাইন