শিশু হাসপাতালে ভর্তির ৭ দিন পর ধরা পড়ল ডেঙ্গু

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২:৪৬ পিএম, ০৪ আগস্ট ২০১৯

জন্ডিস, লিভারে সমস্যাসহ বেশ কিছু জটিলতা নিয়ে ঢাকা শিশু হাসপাতালে ভর্তি হয় সাত বছর বয়সী খাদিজাতুল কুবরা। রাজধানীর আগারগাঁওয়ের এ হাসপাতালটিতে ৭-৮ দিন চিকিৎসা নেয়ার পরও ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয় সে। অন্য অসুখের চিকিৎসার পাশাপাশি এখন চলছে তার ডেঙ্গু জ্বরের চিকিৎসাও।

কুবরার বাবা মো. আবুল খায়ের এবং মা বিবি কুলসুম। নোয়াখালীর সুবর্ণচরের একটি চরে তাদের বাস। আরও এক শিশুসন্তানসহ পরিবারের চারজনই এখন শিশু হাসপাতালে। দীর্ঘদিন ধরে মেয়ের চিকিৎসা করাতে গিয়ে এখন নিঃস্ব হতদরিদ্র এই পরিবার।

কুবরার বাবা মো. আবুল খায়ের জাগো নিউজকে বলেন, ‘কুবরার জন্ডিস, লিবারসহ বেশ কিছু সমস্যা নিয়ে তাকে নোয়াখালী সদর হাতপাতালে ভর্তি করান। তিনদিন চিকিৎসার পর সেখানকার চিকিৎসকরা তাকে ঢাকা শিশু হাসপাতালে নিয়ে আসার পরামর্শ দেন। এরপর কুবরাকে গত ১৫ দিন আগে ঢাকা শিশু হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।’

ঢাকা শিশু হাসপাতালে ভর্তির ৭ থেকে ৮ দিন পর হঠাৎ তার তীব্র জ্বর আসে। বিষয়টি চিকিৎসকদের জানালে তারা ডেঙ্গু রোগের টেস্ট করান এবং ডেঙ্গু ধরা পড়ে।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, কুবরার শারীরিক অবস্থার কিছুটা উন্নতি হলেও আরও কিছুদিন তাকে চিকিৎসা নিতে হবে। সেই সঙ্গে জটিল রোগের কারণে কুবরাকে তিন মাস পরপর রক্ত নেয়া লাগবে।

ঢাকা শিশু হাসপাতালে শনিবার (৩ আগস্ট) পর্যন্ত ১৪৮ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি রয়েছে। এ পর্যন্ত মারা গেছে তিনজন।

পিডি/এসআর/পিআর

টাইমলাইন