সারাদেশে কমেছে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৪:৪১ পিএম, ১২ আগস্ট ২০১৯
ফাইল ছবি

সারাদেশে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা কমেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় রাজধানী ঢাকা ও ঢাকার বাইরের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে মোট দুই হাজার ৯৩ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী ভর্তি হয়েছেন। মোট ভর্তিকৃত রোগীর মধ্যে ঢাকার ৪০টি সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে এক হাজার ২৫১ জন ও ঢাকার বাইরের হাসপাতালে রোগীর সংখ্যা ৮৪২ জন। এর আগের ২৪ ঘণ্টায় রাজধানীতে এক হাজার ৩৫৩ জন ও ঢাকার বাইরে রোগীর সংখ্যা ছিল ৯৮১ জন।

সোমবার বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার অ্যান্ড কন্ট্রোল রুমের সহকারী পরিচালক ডা. আয়েশা আক্তার এ তথ্য জানান।

চলতি বছরের ১ জানুয়ারি থেকে আজ (১২ আগস্ট) পর্যন্ত রাজধানীসহ সারাদেশে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪৩ হাজার ২৭১ জন। তাদের মধ্যে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরেছেন ৩৫ হাজার ২২৫ জন।

বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৮ হাজার ৬ জন। ডেঙ্গু আক্রান্তদের মধ্যে সরকারি হিসাবে মারা গেছেন ৪০ জন। কিন্তু বেসরকারি বিভিন্ন সূত্রের দাবি মৃতের সংখ্যা দ্বিগুণ ছাড়িয়েছে!

মোট রোগীর মধ্যে জানুয়ারিতে ৩৮ জন, ফেব্রুয়ারিতে ১৮, মার্চে ১৭, এপ্রিলে ৫৮, মেতে ১৯৩, জুনে ১ হাজার ৮৮৪, জুলাইয়ে ১৬ হাজার ২৫৩ ও চলতি ১১ আগস্ট পর্যন্ত ২৪ হাজার ৮১০ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছেন।

সরকারি হিসাবে মৃত ৪০ জনের মধ্যে এপ্রিলে ২ জন, জুনে ৪ জন, জুলাইয়ে ২৪ জন এবং আগস্টে ১০ জন মারা গেছেন।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার অ্যান্ড কন্ট্রোল রুম সূত্রে জানা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজধানীসহ সারাদেশে সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন দুই হাজার ৯৩ ডেঙ্গু রোগী। এদের মধ্যে রাজধানী ঢাকায় ৮৪২ জন, ঢাকা বিভাগসহ (ঢাকা শহর ছাড়া) বিভিন্ন বিভাগে ১ হাজার ২৫১ জন।

ঢাকায় ভর্তি রোগীদের মধ্যে ঢাকা মেডিকেলে ১৩৫ জন, মিটফোর্ডে ৭০ জন, ঢাকা শিশু হাসপাতালে ৩০ জন, শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে ৬২ জন, বিএসএমএমইউতে ২৮ জন, পুলিশ হাসপাতাল রাজারবাগে ২৯ জন, মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১১৯ জন, বিজিবি হাসপাতাল পিলখানা ঢাকায় ৪ জন, সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে ১৭ জন এবং কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ৩৬ জন।

ঢাকা শহরের বাইরে বিভিন্ন বিভাগের ভর্তি রোগীদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ২৯৮ জন, চট্টগ্রামে ২৩৯ জন, খুলনায় ১৭৯ জন, রংপুরে ৯৪ জন, রাজশাহীতে ১৩২ জন, বরিশালে ২০৩ জন, সিলেটে ১৬ জন ও ময়মনসিংহ বিভাগে ৯০ জন।

এমইউ/বিএ/জেআইএম

টাইমলাইন  

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]