ডেঙ্গুতে সন্তান হাসপাতালে ভর্তি, মা পরপারে

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি মাদারীপুর
প্রকাশিত: ১১:২৩ এএম, ০৩ আগস্ট ২০১৯

মাদারীপুরে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে আরও এক গৃহবধূ মারা গেছেন। এনিয়ে গত এক সপ্তাহে মাদারীপুর জেলায় তিন ডেঙ্গু রোগী মারা গেলেন।

কালকিনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে, গত ৩০ জুলাই পৌরসভার উত্তর কৃষ্ণনগর এলাকার আব্দুর জব্বার মিয়ার মেয়ে নাদিরা বেগম (৪০) ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। ১ জুলাই তার অবস্থার অবনতি হলে বরিশাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য শুক্রবার রাতে ঢাকায় পাঠান চিকিৎসকরা। কিন্তু ঢাকা যাওয়ার পথে রাতে নাদিরা বেগম মারা যান।

গত ৩০ জুলাই থেকে নাদিরা বেগমের মেয়ে খাদিজা আক্তারও (১০) ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে কালকিনি হাসপাতালে ভর্তি আছে।

এছাড়া গত সোমবার ডেঙ্গু জ্বরে কালকিনি পৌর এলাকার ঠেঙ্গামাড়া গ্রামের বারেক বেপারীর ছেলে জুলহাস বেপারী ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ১৮ জন শনাক্ত হয়ে শনিবার সকাল ১০টা পর্যন্ত জেলায় ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা দাঁড়ায়েছে ৪৮ জনে। এদের মধ্যে মাদারীপুর সদর হাসপাতাল, শিবচর, কালকিনি ও রাজৈর উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি আছেন ১৫ জন। বাকিদের উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা, বরিশাল ও ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

জেলায় ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় সাধারণ মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ছে। তবে চিকিৎসকরা বলছেন ভয়ের কিছু নেই।

মাদারীপুরের সিভিল সার্জন ডা. শফিকুল ইসলাম জানান, ৫ থেকে ৭ জন জেলায় থেকে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছেন। আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। জ্বর হলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

নাসিরুল হক/এফএ/জেআইএম

টাইমলাইন