দক্ষিণের ১১ ওয়ার্ড ডেঙ্গুমুক্ত : মেয়র খোকন

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৪৩ পিএম, ০১ আগস্ট ২০১৯

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) ১১টি ওয়ার্ড ডেঙ্গুমুক্ত হয়েছে বলে দাবি করেছেন মেয়র সাঈদ খোকন। তিনি জানিয়েছেন, আগামী সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহের মধ্যে ডিএসসিসি এলাকার ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা চালানো হচ্ছে।

সচিবালয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে বৃহস্পতিবার (১ আগস্ট) ডেঙ্গু পরিস্থিতি নিয়ে সভায় এ কথা জানান তিনি। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক সভায় সভাপতিত্ব করেন।

ডিএসসিসি মেয়র বলেন, ‘দিন গড়াচ্ছে আর ডেঙ্গু পরিস্থিতি জটিল হচ্ছে, এ ব্যাপারে কোনো সন্দেহ নেই। ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন তার নাগরিকদের নিয়ে পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য সুপরিকল্পিত পরিকল্পনার ভিত্তিতে কাজ এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। আমাদের লক্ষ্য আগামী সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহের মধ্যে ঢাকা দক্ষিণ সিটিতে ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণের মধ্য দিয়ে জনগণকে পরিত্রাণ দেয়ার সর্বাত্মক চেষ্টা অব্যাহত রাখা।’

তিনি বলেন, ‘একদিক থেকে যেমন বিভিন্ন রকম দুঃসংবাদ ও আতঙ্কিত হওযার মতো পরিস্থিতি সৃষ্টি হচ্ছে, সেভাবে আরেক দিক থেকে আশার আলোও আছে।’

‘ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের নতুন যুক্ত হওয়া ওয়ার্ডগুলো বাদ দিলে পূর্বের যে ৫৭টি ওয়ার্ড ছিল সেই ৫৭টি ওয়ার্ডের ১১টি ওয়ার্ডকে ডেঙ্গুমুক্ত করা সম্ভব হয়েছে। সেগুলো হলো হাজারীবাগ-ঝিগাতলা এলাকার ১৪ নম্বর ওয়ার্ড, নীলক্ষেত-ঢাকা কলেজ এলাকার ১৮ নম্বর, গণকটুলী-হাজারীবাগ এলাকার ২২ নম্বর ওয়ার্ড, লালবাগ-নবাবগঞ্জের ২৩ নম্বর ওয়ার্ড, ইসলামবাগের ২৯ নম্বর ওয়ার্ড, বংশাল-ইংলিশ রোডের ৩২ নম্বর ওয়ার্ড, লক্ষ্মীবাজারের ৪২ নম্বর ওয়ার্ড, পূর্ব জুরাইনের ৫৩ নম্বর ওয়ার্ড ও কামরাঙ্গীরচর এলাকার ৫৫ ও ৫৬ নম্বর নম্বর ওয়ার্ড- এ ১১টি ওয়ার্ড আপাতত ডেঙ্গুমুক্ত হিসেবে দেখতে পাচ্ছি।’

১১টি ওয়ার্ড ডেঙ্গুমক্ত বললেও ১০টি ওয়ার্ডের নাম জানান মেয়র। এ সময় তিনি আরেকটি ওয়ার্ডের নাম জানাননি।

সাঈদ খোকন আরও বলেন, ‘গত ১৭ থেকে ২৭ জুলাই স্বাস্থ্য অধিদফতরের সিডিসি (কমিউনিকেবল ডিজিজ কন্ট্রোল) এ সব ওয়ার্ডগুলোর ওপর জরিপ চালিয়ে এ তথ্য নিশ্চিত করে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনকে অবহিত করেছে।’

আরএমএম/এনডিএস/পিআর

টাইমলাইন